Main Menu

আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় হ্যাপির ‘আমাতুল্লাহ’ হওয়ার গল্প

স্ক্যান্ডালের সঙ্গে জড়িয়ে পড়া সাবেক চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপির আপাদমস্তক বোরকা পরা তরুণীতে পরিণত হওয়ার কাহিনী নিয়ে প্রকাশিত একটি বই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

চলতি জুনে ‘হ্যাপি থেকে আমাতুল্লাহ’ নামের বইটি প্রকাশের পর এর হাজার কপি বিক্রি হয়েছে। সারা দেশের পাঠকের চাহিদা পূরণ করতে বইটি পুনর্মুদ্রণ করতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এর প্রকাশক।

আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশের জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের সঙ্গে স্ক্যান্ডালে জড়িয়ে পড়ে ব্যাপক আলোচিত হন ঢালিউডের নায়িকা হ্যাপি।

এক পর্যায়ে ‘অলৌকিক ডাকে’ বদলে যান তিনি। অভিনয় ছেড়ে দিয়ে পুরোপুরি পরহেযগার হয়ে যান। আপাদমস্তক বোরকা পরার পাশাপাশি নিজের ‘হ্যাপি’ নাম বদলে ‘আমাতুল্লাহ’ বা আল্লাহর দাসী রাখেন তিনি।

হ্যাপির এই পরিবর্তনের কাহিনী নিয়ে দীর্ঘ সাক্ষাৎকার নেন সাদেকা সুলতানা সাকি নামের এক নারী লেখক ও তার স্বামী আবদুল্লাহ আল ফারুক।

তারা হ্যাপির সাক্ষাৎকারের উপর ভিত্তিতে করে ‘হ্যাপি থেকে আমাতুল্লাহ’ নামে বইটি লেখেন। যা প্রকাশ করে ‘মাকতাবাতুল আজহার’ নামের একটি প্রকাশনী।

হ্যাপি তার বদলে যাওয়া জীবন সম্পর্কে বলেছেন, তিনি অতীত মুছে ফেলতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তিনি চলচ্চিত্র জগত ছেড়ে দিয়ে একটি মাদ্রাসায় কোরআন পড়ছেন। এখন কেউ তার আঙুলের নখও পর্যন্ত দেখতে পাবে না।






আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*